বাংলাদেশের সংবিধান_Image

বাংলাদেশের সংবিধান ।

 বাংলাদেশের সংবিধান  ।

বাংলাদেশের সংবিধান সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য:

  • সংবিধানে মোট অনুচ্ছেদ রয়েছে -১৫৩ টি।
  •  প্রস্তাবনা রয়েছে -১ টি।
  • মোট ভাগ- ১১ টি।
  • মোট তফসিল -৭ টি ।
  • এ পর্যন্ত সংশোধনী আনা হয়েছে- ১৭ টি ।
  • সংবিধানের সংশোধনীও ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে -১৪২ নং অনুচ্ছেদ মোতাবেক ।
  • হস্তলিখিত সংবিধানে প্রথম স্বাক্ষর করেন- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ।
  • গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সংবিধান গৃহীত হয়- ৪ নভেম্বর ১৯৭২।(বাংলা১৮ কার্তিক ১৩৭৯ বঙ্গাব্দ )।
  • গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান কার্যকর হয়- ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭২।
  • সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সংক্রান্ত বিষয়ে উল্লেখ আছে – ৭৩ নং অনুচ্ছেদে ।
  • সংসদ চলাকালে কমপক্ষে৬০ জন সদস্য উপস্থিত থাকতে হবে বলা হয়েছে ৭৫(২) নং   অনুচ্ছেদে ।
  • সংসদ সদস্যদের বাসভবনের নাম কি -ন্যানগ্রীন বা ন্যানহাউস  ।
  • হস্তলিখিত সংবিধানের মূল লেখক কে- আব্দুর রউফ ।
  • বাংলাদেশের সংবিধান তৈরি করা হয়- ব্রিটেন ও ভারতের সংবিধানের আলোকে ।
  • বিশ্বের সবচেয়ে ছোট সংবিধান- যুক্তরাষ্ট্রের ।
  • কোন লিখিত সংবিধান নেই -যুক্তরাজ্যের ।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের মূলনীতি কয়টি -৪টি।
  • বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় মূলনীতি কয়টি -৪টি।
  • বাংলাদেশের সংবিধান শেষ হয়েছে কিসের মাধ্যমে- তফসিলের মাধ্যমে ।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের মূল কপিটি কোথায় সংরক্ষিত রাখা হয়েছে -বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরে ।
  • বাংলাদেশের সংবিধান কয়টি অফসেট মেশিনে ছাপা হয়েছে-২ টি।
  • বাংলাদেশের সংবিধান কোন ব্যান্ডের অফসেট মেশিনে ছাপা হয়েছে -ক্র্রাবটি ব্রান্ডের।
  • বাংলাদেশের সংবিধান ছাপাতে কত টাকা খরচ হয়েছে- ১৪ হাজার টাকা ।
  • বাংলাদেশের সংবিধান চামড়া দিয়ে বাধানোর কাজ করেন- আবু সুফি ।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের মৌলিক অধিকারের ধারণা নেওয়া হয়েছে -যুক্তরাষ্ট্রের ।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের ন্যায়পালর ধারণা দেওয়া হয়েছে -সুইডেন ।
  • সংবিধানের অলংকরণ করেন কে- শিল্পী হাশেম খান ।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের হস্ত লেখক বাল লিপিকার কে -এ কে এম আব্দুর রউফ ।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের অঙ্গসজ্জা করেন কে- শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন ।
  • গণপরিষদের প্রথম অধিবেশন বসে ১০ এপ্রিল, ১৯৭২।
  • বাংলাদেশের সংবিধান প্রণয়নের লক্ষ জারি করা হয়- গণপরিষদ আদেশ ।
  • বাংলাদেশ গণপরিষদ আদেশ জারি করা হয় – ২৩ মার্চ  ১৯৭২ থেকে ।
  • বাংলাদেশের গণপরিষদ আদেশ কার্যকর করা হয় -২৬ মার্চ ১৯৭২ থেকে ।
  • জাতীয় পরিষদের সদস্য ও প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য সংখ্যা ছিল- ৪৬৯ জন ।
  • খসড়া সংবিধান গণপরিষদে উত্থাপন করা হয়- ১২অক্টোবর, ১৯৭২। (২য় অধিবেশনে)
  • গণপরিষদে সংবিধান এর উপর প্রথম পাঠ শুরু হয়- ১৯ অক্টোবর, ১৯৭২।
  • গণপরিষদের সংবিধানের উপর দ্বিতীয় পাঠ শুরু হয়- ৩১ অক্টোবর, ১৯৭২।
  • অস্থায়ী সংবিধান আদেশ জারি করেন -বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ।
  • বাংলাদেশের গণপরিষদের কতজন সদস্য নিয়ে গঠিত হয় -৪০৩ জন।
  • গণপরিষদ কত তারিখ থেকে কার্যকর হয়েছে বলে ধরা হয়২৬ শে মার্চ১৯৭১।
  • সংবিধানে গণপরিষদের স্বাক্ষর দান কর্মসূচী শুরু হয়-১৪,১১,১৯৭২।
  • গণপরিষদ সদস্যদের স্বাক্ষরদান কর্মসূচি শেষ হয় কবে- ১৫ নভেম্বর ১৯৭২।
  • গণপরিষদের প্রথম স্পিকার কে ছিলেন -শাহ আব্দুল হামিদ ।
  • গণপরিষদের প্রথম ডেপুটি স্পিকার কে ছিলেন- মোহাম্মদ উল্লাহ ।
  • গণপরিষদ বিলুপ্ত হয় কত তারিখে- ১৬ ডিসেম্বর১৯৭২।
  • গণপরিষদের সদস্যদের মধ্যে কতজন নির্দলীয় সদস্য ছিল -২ জন।
  • গণপরিষদের সদস্য মধ্যে আওয়ামী লীগ দলীয় সদস্য ছিল- ৪০০ জন।
  • কোন ঘোষণাপত্রের মাধ্যমে বাংলাদেশ গণপরিষদ গঠিত হয়- ছয় দফা।
  • গণপরিষদের সংবিধানের উপর প্রথম পাঠ শুরু ও শেষ হয় কবে- ১৯-৩০, অক্টোবর ।
  • গণপরিষদের সংবিধানের উপর তৃতীয় ও শেষ পাঠ শুরু ও শেষ হয় কবে -৪ নভেম্বর ।
  • বাংলাদেশের সংবিধান প্রণয়ন কমিটির সভাপতি কে ছিলেন- ডঃ কামাল হোসেন ।
  • বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন হয় কিভাবে- সংসদ সদস্যদের ভোটে ।
  • সংবিধানের কত নম্বর অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে রাষ্ট্রপতি সাজাপ্রাপ্ত অপরাধীকে ক্ষমা করতে পারে -অনুচ্ছেদ ৪৯।
  • বাংলাদেশের প্রতিরক্ষা কর্মবিভাগ এর সর্বাঅধিনায়ক কে -রাষ্ট্রপতি ।
  • কার অনুমতি ছাড়া রাষ্ট্রপতি যুদ্ধ ঘোষণা করতে পারেন না- প্রধানমন্ত্রীর।
  • বাংলাদেশে প্রথম রাষ্ট্রপতি নির্বাচন করা হয় কত সালে -১৯৭৮ সালে ।
  • বাংলাদেশে কার উপর আদালতের কোন এখতিয়ার নেই -রাস্ট্রপতির উপর।
  • রাষ্ট্রপতিকে অভিশংসন করা হয় কোন অনুচ্ছেদ এর মাধ্যমে- অনুচ্ছেদ ৫২।
  • রাষ্ট্রপতিকে অপসারণ করা হয় কোন অনুচ্ছেদ এর মাধ্যমে -অনুচ্ছেদ ৫৩।
  • রাষ্ট্রপতির অবর্তমানে কে রাষ্ট্রপতি দায়িত্ব পালন করেন -স্পিকার ।
  • আইনের দৃষ্টিতে সকল নাগরিক সমান সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে -অনুচ্ছেদ ২৭।
  • বাংলাদেশের সংবিধানে কয়টি মৌলিক অধিকারকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে -১৮ টি।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের নাম কি- গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ।
  • বাংলাদেশের সংবিধান শুরু হয়েছে কিসের মাধ্যমে-” বিসমিল্লাহির রহমানের রাহিম ”এর মাধ্যমে ।
  • সংবিধানের অঙ্গসজ্জা করেন কে- শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন ।
  • গণপরিষদের প্রথম অধিবেশন বসে ১০ এপ্রিল,১৯৭২।
  • গণপরিষদের প্রথম অধিবেশনের সভাপতি ছিলেন -মওলানা আবদুর রশিদ তর্কবাগীশ ।
  • বাংলাদেশের গণপরিষদ আদেশ জারি করেন কে -জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ।
  • বাংলাদেশ গণপরিষদের কতজন সদস্য নিয়ে গঠিত হয়–৪০৩  জান ।
  • সরকারি কর্মকমিশন পিএসসি প্রতিষ্ঠার কথা বলা হয়েছে সংবিধানের -১৩৭ নং অনুচ্ছেদে ।
  • সরকারি কর্ম কমিশন   ( পি এস সি) প্রতিষ্ঠা কথা বলা হয়েছে- সংবিধানের ১৩৭ নং অনুচ্ছেদে ।
  • সরকারি কর্ম কমিশনেরপদের মেয়াদ উল্লেখ আছে -১৩৯(১-৪)নং অনুচ্ছেদে ।
  • বাংলাদেশের সিভিল সার্ভিসের ক্যাডার সংখ্যা-২৬ টি ।
  • ”বিসমিল্লাহির রহমানের রাহিম”- বাংলাদেশের সংবিধানের প্রস্তাবনার উপরের অংশ ।
  • বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আইন কোনটি- সংবিধান ।
  • রাষ্ট্র কৃর্তৃক বাছাইকৃত জীবন প্রণালী হচ্ছে সংবিধান কে বলেছেন- এরিস্টোটল ।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের নাম কি -গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ ।
  • নিচের কোনটি একটি দেশের দর্পণ বলা হয়ে থাকে- সংবিধানকে।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের প্রধান বৈশিষ্ট্য -১২ টি ।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের তফসিল রয়েছে -৭ টি ।
  • ৯৩  টি পাতা ছিল হস্তলিখিত সংবিধানে, তবে স্বাক্ষর করার পর মোট পাতা ১০৯ টি ।
  • কত নং অনুচ্ছেদ মোতাবেক সংবিধান সংশোধনের বিধান আছে -১৪২ নং অনুচ্ছেদে ।
  • ৭খ:নং অনুচ্ছেদে- সংবিধান সংশোধনের জন্য কিছু ক্ষেত্রে বাধা দেওয়া হয়েছে।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের আইনের ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে-১৫২ নং অনুচ্ছেদে ।
  • শীতল পাটির উপর বসে লেখা হয়েছে- সংবিধানের মূল প্রচ্ছদ ।
  • সরকারি মুদ্রানাক্ষয়- মুদ্রণে দায়িত্ব ছিল।
  • বাংলাদেশের সংবিধানের ধরন -লিখিত সংবিধান।
  • দুষ্পরিবর্তনীয়- বাংলাদেশের সংবিধান ।
  • সংবিধান রচনায় একমাত্র মহিলা সদস্য কে ছিলেন-বেগম রাজিয়া বেগম ।
  • রাষ্ট্রপতির মেয়াদকাল কত বছর -পাঁচ(৫) বছর ।
  • অ্যাটর্নি জেনারেল পদে নিয়োগ দান করেন -রাষ্ট্রপতি ।
  • কৃষক ও শ্রমিকদের মুক্তির কথা বলা হয়েছে সংবিধানের কত নম্বর অনুচ্ছেদে -১৪নং অনুচ্ছেদে ।
  • চলাফেরার স্বাধীনতার কথা বলা হয়েছে কত নম্বর অনুচ্ছেদে -৩৬ নং অনুচ্ছেদে ।
  • সমাবেশের স্বাধীনতার কথা বলা হয়েছে কত নম্বর অনুচ্ছেদে – ৩৭নং অনুচ্ছেদে ।
  • বাংলাদেশের আইনসভার নাম কি -জাতীয় সংসদ ।
  • জাতীয় সংসদ ভবনের স্থপতি কে- লুই আই কান ।
  • লুই আই কান কোন দেশের নাগরিক -যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ।
  • জাতীয় সংসদ ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হয় কবে -১৯৬৫ সালে।
  • জাতীয় সংসদ ভবনের ভূমির পরিমান কত -২১৫ একর ।
  • জাতীয় সংসদ ভবন উদ্বোধন করা হয় কবে -২৮ জানুয়ারি,১৯৮২ সালে  ।
  •  জাতীয় সংসদ ভবন উদ্বোধন করেন কে -তৎকালীন রাষ্ট্রপতি আব্দুল সাত্তার ।
  • জাতীয় সংসদ ভবন কত কক্ষ বিশিষ্ট -এক কক্ষ বিশিষ্ট ।
  • জাতীয় সংসদ ভবন কয় তলা বিশিষ্ট -নয় তলা ।
  • তৎকালীন পূর্ব বাংলার আইনসভা ছিল- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হল ।
  • বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের প্রতীক কি- শাপলা ফুল ।
  • বাংলাদেশের সংসদের মোট আসন সংখ্যা কয়টি -৩৫০ টি।
  • বাংলাদেশের সংসদের সাধারণ নির্বাচিত আসন সংখ্যা কয়টি -৩০০ টি ।
  • সংসদে মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত আসন সংখ্যা কয়টি -৫০ টি ।
  • বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ১ নং আসন সংখ্যা কোথায় =পঞ্চগড় -১।
  • বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ৩০০ নং আসন সংখ্যা কোথায় -বান্দারবান ।
  • সংসদে এক অধিবেশন সমাপ্তি এবং পরবর্তী অধিবেশন শুরু হওয়ার ব্যবধান থাকতে পারে কয়দিন -৬০ দিন ।
  • সংবিধান সংশোধনের জন্য কতজন সংসদ সদস্যের ভোটের প্রয়োজন হয় -দুই-তৃতীয়াংশ ।
  • একাধারে কতদিন সংসদে উপস্থিত না থাকলে সংসদ সদস্য পদ বাতিল বলে গণ্য হয় -৯০ দিন ।
  • বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি হতে হলে বয়স কমপক্ষে কত হতে হবে -৩৫ বছর ।
  • বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হতে হলে বয়স কমপক্ষে কত হতে হবে -২১  বছর।

Post Author: showrob

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 × = 80