সংবিধান সম্পর্কে আলোচনা করা হলো : দ্বিতীয় ভাগ।

 দ্বিতীয় ভাগ।

 রাষ্ট্র পরিচালনার মূলনীতি।

(Fundamental Principles Of State Policy)।

অনুচ্ছেদ-৮ : মূলনীতিসমূহ।

 অনুচ্ছেদ-৯ :জাতীয়তাবাদ।

 অনুচ্ছেদ -১০: সমাজতন্ত্র ও শোষণমুক্ত।

অনুচ্ছেদ-১১: গণতন্ত্র ও মানবাধিকার।

অনুচ্ছেদ-১২: ধর্মনিরপেক্ষতা ও ধর্মীয় স্বাধীনতা।

অনুচ্ছেদ-১৩ মালিকানার নীতি।

অনুচ্ছেদ-১৪: কৃষক ও শ্রমিকের মুক্তি।

অনুচ্ছেদ-মৌলিক প্রয়োজনের ব্যবস্থা।

অনুচ্ছেদ-১৬: গ্রামীণ উন্নয়ন ও কৃষি বিপ্লব।

অনুচ্ছেদ-১৭: রাষ্ট্র অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলক শিক্ষা।

অনুচ্ছেদ-১৮: জনস্বাস্থ্য ও নৈতিকতা।

অনুচ্ছেদ-১৮(ক) পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ ও উন্নয়ন।

অনুচ্ছেদ-১৯: সুযোগের সমতা ।

অনুচ্ছেদ-২০: অধিকার ও কর্তব্যরূপে কর্ম।

অনুচ্ছেদ-২১: নাগরিক ও সরকারি কর্মচারীদের কর্তব্য।

অনুচ্ছেদ-২২:  নির্বাহী বিভাগ হইতে বিচার বিভাগের পৃথকীকরণ।

অনুচ্ছেদ-২৩: জাতীয় সংস্কৃতি।

অনুচ্ছেদ-২৪: উপজাতি, ক্ষুদ্র জাতিসত্তা নৃ-গোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ের সংস্কৃতি ।

অনুচ্ছেদ-২৫:আন্তর্জাতিক শান্তি নিরাপত্তা ও সংহতির উন্নয়ন ।

অনুচ্ছেদ – ৮ : মূলনীতিসমূহ 

[(১) জাতীয়তাবাদ , সমাজতন্ত্র , গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতা – এই নীতি সমূহ এবং তৎসহ এই নীতিসমূহ হইতে উদ্ভূত এই ভাগে বর্ণিত অন্য সকল নীতি রাষ্ট্রপরিচালনার মূলনীতি বলিয়া পরিগণিত হইবে ।] 

২) এই ভাগে বর্ণিত নীতিসমূহ বাংলাদেশ পরিচালনার মূল সূত্র হইবে , আইন প্রণয়ন কালে রাষ্ট্র তাহা প্রয়োগ করিবেন , এই সংবিধান ও বাংলাদেশের অন্যান্য আইনের ব্যাখ্যা দানের ক্ষেত্রে তাহা নির্দেশক হইবে এবং তাহা রাষ্ট্র ও নাগরিকদের কাজের ভিত্তি হইবে , তবে এই সকল নীতি আদালতের মাধ্যমে বলবৎযোগ্য হইবে না । 

Article – 8: – Fundamental principles : 

1) The principles of nationalism, socialism, democracy and secularism, together with the principles derived from those as set out in this Part, shall constitute the fundamental principles of state policy. 

2) The Principles set out in this Part shall be fundamental to the governance of Bangladesh, shall be applied by the State in the making of laws, shall be a guide to the interpretation of the Constitution and of the other laws of Bangladesh , and shall form the basis of the work of the State and of its citizens, but shall not be judicially enforceable . 

অনুচ্ছেদ -৯ঃ জাতীয়তাবাদ 

[ ভাষাগত ও সংস্কৃতিগত একক সত্তা বিশিষ্ট যে বাঙালি জাতি ঐক্যবদ্ধ ও সংকল্পবদ্ধ সংগ্রাম করিয়া জাতীয় মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব অর্জন করিয়াছেন , সেই বাঙালি জাতির ঐক্য ও সংহতি হইবে বাঙালি জাতীয়তাবাদের ভিত্তি । ] 

Article:9 – Nationalism 

The unity and solidarity of the Bangalee nation, which , deriving its identity from its language and culture, attained sovereign and independent Bangladesh through a united and determined struggle in the war of independence, shall be the basis of Bangalee nationalism . 

অনুচ্ছেদ-১০ঃ সমাজতন্ত্র ও শোষণমুক্তি 

[ মানুষের উপর মানুষের শোষণ হইতে মুক্ত ন্যায়ানুগ ও সাম্যবাদী সমাজ লাভ নিশ্চিত করিবার উদ্দেশ্যে সমাজতান্ত্রিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা হইবে ।] 

Article : 10- Socialism and freedom from exploitation – 

A socialist economic system shall be established with a view to ensuring the attainment of a just and egalitarian society, free from the exploitation of man by man “. 

অনুচ্ছেদ -১১ঃ গণতন্ত্র ও মানবাধিকার 

[ প্রজাতন্ত্র হইবে একটি গণতন্ত্র যেখানে মৌলিক মানবাধিকার ও স্বাধীনতার নিশ্চয়তা থাকবে মানবসত্তার মর্যাদা ও মূল্যের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ নিশ্চিত হইবে , এবং প্রশাসনের সকল পর্যায়ে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের মাধ্যমে জনগণের কার্যকর অংশগ্রহণ নিশ্চিত হইবে ।] 

Article-10: Democracy and human rights: 

Republic shall be a democracy in which fundamental human rights and freedoms and respect for the dignity and worth of the human person shall be guaranteed, and in which effective participation by the people through their elected representatives in administration at all levels shall be ensured . 

অনুচ্ছেদ -১২ : ধর্মনিরপেক্ষতা ও ধর্মীয় স্বাধীনতা : 

ধর্ম নিরপেক্ষতা নীতি বাস্তবায়নের জন্য , 

ক)  সর্ব প্রকার সাম্প্রদায়িকতা , 

খ) রাষ্ট্র কর্তৃক কোন ধর্মকে রাজনৈতিক মর্যাদা দান , 

গ) রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ধর্মীয় অপব্যবহার ,

ঘ) কোন বিশেষ ধর্ম পালনকারী ব্যক্তির প্রতি বৈষম্য বা তাহার উপর নিপীড়ন, বিলোপ করা হইবে ।] 

Article : 12 – Secularism and freedom of religion- 

The principle of Secularism shall be realised by the elimination of – 

  1. Communalism in all its forms; 
  2. The granting by the State of political status in favour of any religion; 
  3. The abuse of religion for political purposes ; 
  4. Any discrimination against, or persecution of , persons practicing a particular religion. 

অনুচ্ছেদ – ১৩ঃ মালিকানার নীতি 

উৎপাদনযন্ত্র , উৎপাদন ব্যবস্থা ও বন্টনপ্রণালীসমূহ এর মালিক বা নিয়ন্ত্রক হইবেন জনগণ এবং এই উদ্দেশ্য মালিকানা-ব্যবস্থা নিম্নরূপ হইবে : 

ক) রাষ্ট্রীয় মালিকানা , অর্থাৎ অর্থনৈতিক জীবনের প্রধান প্রধান ক্ষেত্র লইয়া সুষ্ঠু ও গতিশীল রাষ্ট্রায়ত্ত সরকারি খাত সৃষ্টির মাধ্যমে জনগণের পক্ষে রাষ্ট্রের মালিকানা ; 

খ) সমবায়ী মালিকানা , অর্থাৎ আইনের দ্বারা নির্ধারিত সীমার মধ্যে সমবায়সমূহের সদস্যদের পক্ষে সমবায়সমূহের মালিকানা;

গ) ব্যক্তিগত মালিকানা , অর্থাৎ আইনের দ্বারা নির্ধারিত সীমার মধ্যে ব্যক্তি মালিকানা । 

Article:-13- principles of ownership – 

The people shall own or control the instruments and means of production and distribution , and with this end in view ownership shall assume the following forms- 

  1. State ownership , that is ownership by the state on behalf of the people through the creation of an efficient and dynamic nationalised public sector embracing the key sectors of the economy ; 
  2. Co-operative ownership, that is ownership by co-operatives on behalf of their members within such as may be prescribed by law; and 
  3. Private ownership , that is ownership by individuals within such limits as may be prescribed by law. 

অনুচ্ছেদ -১৪ঃ কৃষক ও শ্রমিকের মুক্তি 

রাষ্ট্রের অন্যতম মৌলিক দায়িত্ব হইবে মেহনতী মানুষকে-কৃষক ও শ্রমিককে- এবং জনগণের অগ্রসর অংশগ্রহণকে সকল প্রকার শোষণ হইতে মুক্ত দান করা  । 

Article:14- Emancipation of peasants and workers : 

It shall be a fundamental responsibility of the State to emancipate the toiling masses- the peasants and workers and backward sections of the people from all forms of exploitation. 

অনুচ্ছেদ -১৫ঃ মৌলিক প্রয়োজনের ব্যবস্থা : 

রাষ্ট্রের অন্যতম মৌলিক দায়িত্ব হইবে পরিকল্পিত অর্থনৈতিক বিকাশের মাধ্যমে উৎপাদনশক্তির ক্রমবৃদ্ধিসাধন এবং জনগণের জীবনযাত্রার বস্তুগত ও সংস্কৃতিগত মানের দৃঢ় উন্নতিসাধন , যাহাতে নাগরিকদের জন্য নিম্নলিখিত বিষয় সমুহ অর্জন নিশ্চিত করা যায় : 

ক) অন্ন , বস্ত্র,  শিক্ষা ও চিকিৎসাসহ জীবন ধারণের মৌলিক উপকরণ এর ব্যবস্থা ; 

খ) কর্মের অধিকার অর্থাৎ কর্মের গুণ ও পরিমাণ বিবেচনা করিয়া যুক্তিসঙ্গত মজুরির বিনিময় কর্মসংস্থানের নিশ্চয়তা অধিকার ; 

গ) যুক্তিসংগত বিশ্রাম,  বিনোদন ও অবকাশের অধিকার ; এবং 

ঘ) সামাজিক নিরাপত্তা ও অধিকার , অর্থাৎ বেকারত্ব , ব্যাধি ও পঙ্গু জনিত কিংবা বৈধব্য , মাতাপিতৃহীনতা বা বার্ধক্যজনিত কিংবা অনুরুপ অন্যান্য পরিস্থিতিজনিত আয়ত্তাতীত কারণে অভাবগ্রস্ততার ক্ষেত্রে সরকারী সাহায্য লাভের অধিকার । 

Article:15- Provision of basic necessities- 

It shall be a fundamental responsibility of the State to attain, through planned economic growth a constant increase of productive forces and a steady improvement in the material and cultural standard of living of the people , with a view to securing to its citizens-
a) The provision of the basic necessities of life, including food, clothing, shelter, education and medical care;

b) The right to work , that is the right to guaranteed employment at a reasonable wage having regard to the quantity and quality of works; 

c) The right to social security, that is to say, to public assistance in cases of undeserved want arising from unemployment , illness or disablement, or suffered by widows or orphans or in old age, or in other such cases . 

Case Reference: 

Justice demands the slum dwellers should not be unkindly evicted without alternative arrangement for their rehabilitation. But in the instant case nothing can be done at this stage when they were already evicted.  [ Aleya Begum and others vs Bangladesh and other 53 DLR 63] 

অনুচ্ছেদ -১৬ঃ গ্রামীণ উন্নয়ন ও কৃষি বিপ্লব : 

নগর ও গ্রাম অঞ্চলের জীবনযাত্রার মানের বৈষম্য ক্রমাগতভাবে দূর করিবার উদ্দেশ্যে কৃষিবিপ্লবের বিকাশ , গ্রাম অঞ্চলে বৈদ্যুতিকরণ এর ব্যবস্থা , কুটির শিল্প ও অন্যান্য শিল্পের বিকাশ এবং শিক্ষা , যোগাযোগ ব্যবস্থা ও জনস্বাস্থ্যের উন্নয়নের মাধ্যমে গ্রাম অঞ্চলের আমূল রুপান্তরসাধনের জন্য রাষ্ট্র কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন । 

Article:16- Rural development and agricultural revolution – 

The State shall adopt effective measures to bring about a radical transformation in the rural areas through the promotion of an agricultural revolution, the provision of rural electrification, the development of cottage and other industries, and the improvement of education, communications and public health, in those areas , so as progressively to remove the disparity in the standards of living between the urban and the rural areas. 

অনুচ্ছেদ -১৭ঃ রাষ্ট্র অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলক শিক্ষা : 

ক) একই পদ্ধতিতে গণমুখী ও সার্বজনীক শিক্ষা ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য এবং আইনের দ্বারা নির্ধারিত স্তর পর্যন্ত সকল বালক-বালিকাকে অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলক শিক্ষা দানের জন্য; 

খ) সমাজের প্রয়োজনের সহিত শিক্ষাকে সঙ্গতিপূর্ণ করিবার জন্য এবং সেই প্রয়োজন সিদ্ধ করিবার উদ্দেশ্যে যথাযথ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও  সদিচ্ছাপ্রণোদিত নাগরিক সৃষ্টির জন্য ;

গ) আইনের দ্বারা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিরক্ষরতা দূর করিবার জন্য ; কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন । 

Article: 17- Free and compulsory education- 

State shall adopt effective measures for the purpose of – 

  1. Establishing a uniform , mass-oriented and universal system of education and extending free and compulsory education to all children to such stage as may be determined by law’ 
  2. Relating education to the needs of society and producing properly trained and motivated citizens to serve those needs; 
  3. Removing illiteracy within such time as may be determined by law . 

অনুচ্ছেদ -১৮ঃ জনস্বাস্থ্য ও নৈতিকতা 

১)জনগণের পুষ্টির স্তর উন্নয়ন ও জনস্বাস্থ্যের উন্নতিসাধনকে রাষ্ট্র অন্যতম প্রাথমিক কর্তব্য বলিয়া গণ্য করিবেন এবং বিশেষতঃ আরোগ্যের প্রয়োজনে কিংবা আইনের দ্বারা নির্দিষ্ট অন্যবিধ প্রয়োজন ব্যতীত মদ্য ও অন্যান্য মাদক পানীয় এবং স্বাস্থ্যহানিকর তাদের ব্যবহার নিষিদ্ধকরণ এর জন্য রাষ্ট্র কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন । 

২)গণিকাবৃত্তি ও জুয়া খেলা নিরোধের জন্য রাষ্ট্র কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন । 

অনুচ্ছেদ -১৮কঃ পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ ও উন্নয়ন 

[রাষ্ট্র বর্তমান ও ভবিষ্যৎ নাগরিকদের জন্য পরিবেশ সংরক্ষণ ও উন্নয়ন করিবেন এবং প্রাকৃতিক সম্পদ জীব-বৈচিত্র্য, জলাভূমি, বন ও বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা বিধান করিবেন ] 

  1. The State shall regard the raising of the level of nutrition and the improvement of public health as among its primary duties, and in particular shall adopt effective measures to prevent the consumption, except for medical purposes or for such other purposes as may be prescribed by law , or alcoholic and other intoxicating drinks and of drugs which are injurious to health. 
  2. The State shall adopt effective meassures to prevent prostitution and gambling . 

অনুচ্ছেদ -১৯ঃসুযোগের সমতা 

১) সকল নাগরিকের জন্য সুযোগের সমতা নিশ্চিত করতে রাষ্ট্র সচেষ্ট হইবেন । 

২) মানুষের মানুষের সামাজিক ও অর্থনৈতিক অসাম্য বিলোপ করিবার জন্য , নাগরিকদের মধ্যে সম্পদের সুষম বন্টন নিশ্চিত করিবার জন্য এবং প্রজাতন্ত্রের সর্বত্র অর্থনৈতিক উন্নয়নের সমান স্তর অর্জনের উদ্দেশ্যে সুষমা সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করিবার জন্য রাষ্ট্র কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন । 

৩)জাতীয় জীবনের সর্বস্তরে মহিলাদের অংশগ্রহণ ও সুযোগের সমতা রাষ্ট্র নিশ্চিত করিবেন । 

Article: 19- Equality of opportunity –

  1. The State shall endeavour to ensure equality of opportunity to all citizens. 
  2. The State shall adopt economic inequality between man and man and to ensure the equitable distribution of wealth among citizens, and of oppot-unities in order to attain a uniform level of economic development through out the Republic . 
  3. The State Shall endeavour to ensure equality of opportunity and participation of women in all spheres of national life. 

অনুচ্ছেদ -২০ঃঅধিকার ও কর্তব্যরুপে কর্ম 

১) কর্ম হইতেছে কর্মক্ষম প্রত্যেক নাগরিকের অধিকার , কর্তব্য ও সম্মানের বিষয়,  এবং  “প্রত্যেকের নিকট হইতে যোগ্যতা অনুসারে ও প্রত্যেককে কর্ম অনুযায়ী ”- এই নীতির ভিত্তিতে প্রত্যেকে স্বয়ং কর্মের জন্য পারিশ্রমিক লাভ করবেন । 

২) রাষ্ট্র এমন অবস্থা সৃষ্টির চেষ্টা করিবেন , যেখানে সাধারন নীতি হিসেবে কোন ব্যক্তি অনুপার্জিত আয় ভোগ করিতে সমর্থ হইবেন না এবং সেখানে বুদ্ধিবৃত্তিমূলক ও সকল প্রকার সৃষ্টিধর্মী কায়িক-সকল প্রকার শ্রম সৃষ্টিধর্মী প্রয়াসের ও মানবিক ব্যক্তিদের পূর্নতর অভিব্যক্তিতে পরিণত হইবে । 

Article:20- work as a right and duty- 

  1. Work is a right , a duty and a matter of honour for every citizen who is capable of working and everyone shall be paid for his work on the basis of the principle “from each according to his abilities , to each according to his work”. 
  2. The State Shall endeavour to create conditions in which , as a general principle, persons shall not be able to enjoy unearned incomes, and in which human labour in every form, intellectual and physical, shall become a fuller expression of creative endeavour and of the human personality. 

অনুচ্ছেদ -২১ঃনাগরিক ও সরকারী কর্মচারীদের কর্তব্য 

১)সংবিধান ও আইন মান্য করা , শৃঙ্খলা রক্ষা করা, নাগরিকদায়িত্ব পালন করা এবং জাতীয় সম্পত্তি রক্ষা করা প্রত্যেক নাগরিকের কর্তব্য । 

২) সকল সময়ে জনগণের সেবা করিবার চেষ্টা করা প্রজাতন্ত্রের কর্মে নিযুক্ত প্রত্যেক ব্যক্তির কর্তব্য । 

Article:- Work as a right and duty- 

  1. It is the duty of every citizen to observe the Constitution and the laws, to maintain, discipline , to perform public duties and to protect public property . 
  2. Every person in the service of the Republic has a duty to strive at all times to serve the people .  

অনুচ্ছেদ -২২ঃনির্বাহী বিভাগ হইতে বিচার বিভাগ পৃথকীকরণ :

রাষ্ট্রের নির্বাহী অঙ্গসমূহ হইতে বিচার বিভাগের পৃথকীকরণ রাষ্ট্র নিশ্চিত করবেন । 

Article:22- Separation of Judiciary from the executive- 

The State shall ensure the separation of the judiciary from the executive organs of the State. 

অনুচ্ছেদ-২৩ঃ জাতীয় সংস্কৃতি 

রাষ্ট্র জনগণের সংস্কৃতির ঐতিহ্য ও উত্তরাধিকার রক্ষণের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন এবং জাতীয় ভাষা , সাহিত্য ও শিল্পকলা সমূহের এমন পরিশোষণ ও উন্নয়নের ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন , যাহাতে সর্বস্তরের জনগণ জাতীয় সংস্কৃতির সমৃদ্ধিতে অবদান রাখিবার অংশ গ্রহণ করিবার সুযোগ লাভ করিতে পারেন । 

Article:23- National Culture- 

The State shall adopt measures to conserve the cultural traditions and heritage of the people, and so to foster and improve the national language, literature and the arts that all sections of the people are afforded the opportunity to contribute towards and to participate in the enrichment of the national culture. 

অনুচ্ছেদ -২৩কঃউপজাতি, ক্ষুদ্র জাতিসত্তা ,নৃ-গোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ের সংস্কৃতি 

[ রাষ্ট্র বিভিন্ন উপজাতি, ক্ষুদ্র জাতিসত্তা,নৃ-গোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ের অন্যান্য বৈশিষ্ট্যপূর্ণ আঞ্চলিক সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্য সংরক্ষণ , উন্নয়ন ও বিকাশের ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন ।] 

Article:23A : The culture of tribes, minor races, ethnic sects and communities- 

The State Shall take steps to protect and develop the unique local culture and tradition of the tribes, minor races , ethnic sects and communities. 

অনুচ্ছেদ -২৪ঃজাতীয় স্মৃতি নিদর্শন , প্রভৃতি: 

বিশেষ শৈল্পিক কিংবা ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন বা  তাৎর্যমন্ডিত , স্মৃতিনিদর্শন , বস্তু বা  স্থানসমূহকে বিকৃতি,  বিনাশ বা  অপসারণ হইতে রক্ষা করিবার জন্য রাষ্ট্র ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন । 

Article:24- National monuments, etc – 

The State shall adopt measures for the protection against disfigurement, damage of removal of all monuments, objects of places or special artistic of historic importance or interest. 

অনুচ্ছেদ -২৫ঃ আন্তর্জাতিক শান্তি , নিরাপত্তা ও সংহতির উন্নয়ন 

[ জাতীয় সার্বভৌমত্ব ও সমতার প্রতি শ্রদ্ধা , অন্যান্য রাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করা , আন্তর্জাতিক বিরোধের শান্তিপূর্ণ সমাধান এবং আন্তর্জাতিক আইনের ও জাতিসংঘের সনদে বর্ণিত নীতি সমূহের প্রতি শ্রদ্ধা – এই সকল নীতি হইবে রাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ভিত্তি এবং এই সকল নীতির ভিত্তিতে রাষ্ট্র : 

ক) আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে শক্তি প্রয়োগ পরিহার এবং সাধারণ ও সম্পূর্ণ নিষ্ক্রিযকরনের জন্য চেষ্টা করিবেন ; 

খ) প্রত্যেক জাতির স্বাধীন অভিপ্রায় অনুযায়ী পথ ও পন্থা এর মাধ্যমে অবাধে নিজস্ব সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ব্যবস্থা নির্ধারণ ও গঠনের অধিকার সমর্থন করবেন ; এবং 

গ) সাম্রাজ্যবাদ,  ঔপনিবেশিকতাবাদ বা  বর্ণবৈষম্যবাদ এর বিরুদ্ধে বিশ্বের সর্বত্র নিপীড়িত জনগণের ন্যায়সংগত সংগ্রামকে সমর্থন করবেন । 

Article: 25- Promotion of international peace, security and solidarity : – 

  1. The State shall base its international relation on the principles of respect for national sover-eignty and equality, non-interference in internal affairs of other countries, peaceful settlement of international disputes, and respect for international law and the principles enunciated in the United Nations Charter and on the basis of those principles shall- 
  1. Strive for the renunciation of the use of force in international relations and for general and complete disarmament; 
  2. Uphold the right of every people freely to determine and build up its own social, economic and political system by ways and means of its own free choice; and 
  3. Support oppressed people throughout the world waging a just struggle against imperialism, colonialism or racialism. 


Post Author: showrob

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

26 ÷ 13 =